1. info@gaibandhaexpress.news : Farhan :
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৫:১৯ অপরাহ্ন

সুন্দরগঞ্জে জমে উঠেছে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা।

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ
  • Update Time : বুধবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২১
  • ১২৭ Time View

সুন্দরগঞ্জে জমে উঠেছে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা।

তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের ঘোষিত তফশিল মোতাবেক আগামি ২৮ নভেম্বর গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এরই মধ্যে জমে উঠেছে প্রচারণা, পোষ্টারে-পোষ্টারে ছেঁয়ে গেছে ১৩টি ইউনিয়নের হাট-বাজার, রাস্তাঘাট, চায়ের দোকান ও বসতবাড়ি। প্রচারণায় আচারণ বিধি মানছেন না অনেকেই। উপজেলা নির্বাচন অফিস এবং প্রশাসনের পক্ষ প্রার্থীদের নির্বাচনী আচারণ বিধি অনুসরণ করে নিবার্চণী প্রচার-প্রচারণা চালোনোর জন্য পত্র দেয়া হয়েছে। কিন্তু প্রার্থীরা আচারণ বিধি মানছে না।

উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় খোজ নিয়ে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত দলীয় নেতা-কর্মীর ছবি সম্বলিত রঙিন পোষ্টার, ব্যানার, ফেস্টুুন, লিফলেট সরানো হয়নি। যানবাহনের বহর নিয়ে চলছে শো-ডাউন। প্রার্থীদের যানবাহনের বেপরোয়া চলাচলে স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থী এবং সাধারণ পথচারীরা চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। অভিযোগ রয়েছে, উপজেলার ছাপড়হাটী ইউনিয়ন পরিষদের দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে প্রচার-প্রচারণা নিয়ে বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। গত বোরবার রাতে ছাপড়হাটী ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী জোৎস্মা বেগম জনতা এবং আসাদুজ্জামান ভূট্টুর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে মাইকে প্রচার-প্রচারণা নিয়ে উপজেলার মন্ডলের হাটে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। পরে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উভয় প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের সরিয়ে দেয়।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ১৩ ইউনিয়নের ১৩ জন চেয়ারম্যান, ৩৯জন সংরক্ষিত সদস্য ও ১১৭ জন সাধারন সদস্য পদের বিপরীতে উপজেলা নির্বাচন কমিশন মনোনয়ন বৈধ ঘোষনা করেছেন ৮৮৬ জনের। এরমধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১০৩ জন, সংরক্ষতি সদস্য পদে ২১৮ জন এবং সাধারন সদস্য পদে ৫৫৯ জন। এছাড়া ১৩টি ইউনিয়নের ১২৬টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। ১৩টি ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্য ৩ লাখ ১০ হাজার ৩০৩ জন। এরমধ্যে পুরুষ ১ লাখ ৫২ হাজার ৮৪৩ জন এবং নারী ১ লাখ ৫৭ হাজার ৪৬০ জন।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার সেকেন্দার আলী জানান, যথানিয়মে আচারণ বিধি মেনে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা চালানোর জন্য প্রার্থীদের পত্র দেয়া হয়েছে। যদি কোন প্রার্থী আচারণ বিধি না মানে তাহলে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোহাম্মদ আল মারুফ জানান, আচারণ বিধি মানার ব্যাপারে কঠোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। অতিদ্রুত ভ্রামম্যান আদালত পরিচালনা করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All Rights Reserved © 2021 Gaibandha Express
Theme Customized BY LatestNews